Breaking News
Home / অন্যান্য / কানাডিয়ান ইমিগ্রেন্টস অ্যাওয়ার্ড’র পথে বাংলাদেশের সাবিলা

কানাডিয়ান ইমিগ্রেন্টস অ্যাওয়ার্ড’র পথে বাংলাদেশের সাবিলা

কানাডায় আসার পর থেকেই যেসব ইমিগ্রেন্টস সমাজে পজিটিভ প্রভাব রাখছেন তাদের উৎসাহিত করার জন্যে কানাডার ‘রয়েল ব্যাংক অফ কানাডা’ প্রতি বছর দিয়ে আসছেন তাদের স্বীকৃতিস্বরূপ পুরস্কার ‘Canadian Immigrant Award’। চুড়ান্ত পর্বে পুরো দেশ থেকে ২৫ জন ইমিগ্রেনটসকে দেয়া এই স্বীকৃতিতে চলতি বছর পুরস্কারের জন্য মনোনীত তালিকায় ৭৫ ফাইনালিস্টের মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশী হিসেবে জায়গা করে নিয়েছেন ‘সাল সাবিলা’। বাংলাদেশ থেকে মাত্র ১০ বছর বয়সেই কানাডা চলে আসার পরপরই সাল সাবিলা স্বেচ্ছাসেবকমূলক কাজ করার মাধ্যমে কানাডাজুড়ে অর্জন করেছে অন্যান্য সুনাম।

মাত্র ১৬ বছর বয়স থেকেই তরুণদের সমাজ কল্যাণের ইচ্ছা ও উদ্যোগের প্রতি কাজ করতে নিজেকে উৎসর্গ করা সাবিলা বর্তমানে কাজ করছেন তরুণ ক্ষমতায়ন নিয়ে। মাত্র ২০ বছর বয়সেই প্রতিষ্ঠা করেছেন দুইটি অলাভজনক সংগঠন। সাবিলার ‘ইয়ুথ গ্র্যাভিটি’ নামক উদ্যোগটি কাজ করছে তরুণদেরই নিয়ে। সাবিলা বলেন, ‘এটি তরুণদের জন্য একটি প্লাটফর্ম যেখানে যেসব তরুণ তাদের সমাজের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে চায়, তাদের সহযোগিতা প্রদান করে আসছে।’

সমাজের উন্নয়নের ভূমিকা রাখতে চাওয়া তরুণরা বিভিন্ন সমস্যায় যথেষ্ট ভূমিকা রাখতে পারে না বিভিন্ন পারিপার্শ্বিক সমস্যার কারণে। এই সমস্যাকেই যেনো ঘিরে কাজ করছে ইয়ুথ গ্র্যাভিটি। তরুণদের হিউম্যান রিসোর্স সহ দক্ষতার বিকাশ ঘটিয়ে পরিকল্পনা, ফান্ডসহ অন্যান্য সুবিধা প্রদান করে যেন তারা সমাজের উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারে ইত্যাদি প্রকল্পে সফলতার পরিচয়ের সাথে সম্প্রতি সাবিলার ইয়ুথ গ্র্যাভিটি কমিউনিটি বেসড রিসার্চ প্রজেক্ট চালানোর জন্য পেয়েছে ১ লাখ ডলারের অনুদানও।

শুধু তাই নয়, পেয়েছেন ‘International Queen’s Commonwealth Trust’ পুরষ্কারের সম্মাননাও। ইয়ুথ গ্র্যাভিটি ছাড়াও সাবিলার প্রতিষ্ঠা করা দ্বিতীয় নন প্রফিট সংগঠনটি কাজ করছে বিজ্ঞান, টেকনোলজি, ইঞ্জিনিয়ারিং ও গণিত নিয়ে কাজ করতে চাওয়া উদ্যোমী নারীদের নিয়ে। নারীরের সাহায্য করতে প্রতিষ্ঠিত এই অনলাইন প্লাটফর্মের সাড়া জাগানোর গল্পটাও অল্প নয়।

About _boss_

Check Also

করোনায় দেশের চাকরি প্রত্যাশীদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত

করোনা মহামারির কারণে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছেন দেশের চাকরি প্রত্যাশীরা। কেননা করোনার কারণে তাদের চাকরি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *